1. banijjobarta22@gmail.com : admin :

আজও শেয়ারবাজারে ইতিবাচক প্রবণতা

  • Last Update: Thursday, June 20, 2024

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঈদের আগে শেয়ারবাজারে টানা দরপতন হলেও ঈদের পর ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। আগের কার্যদিবসের ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবারও প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্যসূচক বেড়েছে। এর মাধ্যমে ঈদের পর লেনদেন হওয়া দুই কার্যদিবসেই শেয়ারবাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতার দেখা মিললো।

মূল্যসূচক বাড়ার পাশাপাশি ডিএসই এবং সিএসইতে দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট। সেই সঙ্গে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ। ডিএসইতে লেনদেন বেড়ে পাঁচশ কোটি টাকার কাছাকাছি চলে এসেছে।

এর আগে অব্যাহত দরপতনের মধ্যে পড়ে ঈদের আগে এক মাসের মধ্যে ডিএসই’র বাজার মূলধন প্রায় এক লাখ কোটি টাকা কমে যায়। আর ডিএসই’র প্রধান মূল্যসূচক কমে প্রায় ৭০০ পয়েন্ট। ফলে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে বড় ধরনের আতঙ্ক দেখা দেয়। বাজারে ক্রেতা সংকট প্রকট হয়ে ওঠে।

এ পরিস্থিতিতে ঈদের ছুটি শেষে শেয়ারবাজারে টানা ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। সেই সঙ্গে বাজারে ক্রেতা বাড়তে দেখা যাচ্ছে। বাজারে বিক্রেতার তুলনায় ক্রেতা বেশি থাকায় বৃহস্পতিবার সিংহভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে।

এতে দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইতে দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে ২৮৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট। বিপরীতে দাম কমেছে ৫৫টি প্রতিষ্ঠানের। আর ৫০টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। এরমধ্যে সাতটি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম একদিনে যতটা বাড়া সম্ভব ততটাই বেড়েছে। এছাড়া একটি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম ৪৩ শতাংশ বেড়েছে।

এতে ডিএসই’র প্রধান মূল্যসূচক ডিএসই-এক্স ৮২ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ২৪৪ পয়েন্টে উঠে এসেছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক আগের দিনের তুলনায় ২৪ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ১৪৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর বাছাই করা ভালো ৩০টি কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই-৩০ সূচক আগের দিনের তুলনায় ৩১ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৮৭৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

সবকটি মূল্যসূচক বাড়ার পাশাপাশি লেনদেনের গতিও বেড়েছে। দিনভর বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৪৫২ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। ঈদের আগে শেষ কার্যদিবসে লেনদেন হয় ২৪৬ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ২০৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা।

টাকার অঙ্কে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে এশিয়াটিক ল্যাবরেটরিজের শেয়ার। কোম্পানিটির ১৪ কোটি ৬৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা লিন্ডে বাংলাদেশের ১৪ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ১৪ কোটি ১৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে সি পার্ল বিচ রিসোর্ট।

এছাড়া ডিএসইতে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ দশ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে- বিচ হ্যাচারি, রূপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স, ফারইস্ট নিটিং, আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ, ইউনিক হোটেল, ফরচুন সুজ এবং লাভেলো আইসক্রিম।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই বেড়েছে ১৭৮ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেনে অংশ নেওয়া ১৯৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১২২টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৪৮টির এবং ২৯টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। লেনদেন হয়েছে ১২১ কোটি ৬৩ লাখ টাকা। আগের কর্যদিবসে লেনদেন হয় ৬ কোটি ৮৭ লাখ টাকা।

Banijjobarta© Copyright 2022-2024, All Rights Reserved
Site Customized By NewsTech.Com