1. banijjobarta22@gmail.com : admin :

সংকটেও বেড়েছে অধিকাংশ ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা

  • Last Update: Sunday, December 31, 2023

সোহেল রাহমান

ব্যাংক ঋণের সুদহার বৃদ্ধি ও বৈদেশিক বাণিজ্যের উপর ভিত্তি করে দেশের অনেক ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা বেড়েছে। ২০২৩ সালের শেষ ছয় মাসে তুলনামূলক ব্যাংক ব্যবসা বেড়েছে বলে মনে করছেন ব্যাংকারদের। সার্বিক হিসাবে ১২ মাসে মুনাফা বেড়েছে বেশিরভাগ ব্যাংকের।

জানা গেছে, ব্যাংকের আয়ের বড় একটি অংশ আসে বৈদেশিক বাণিজ্য থেকে। ২০২৩ সালের প্রথমার্ধে (জানুয়ারি-জুন) দেশের প্রায় সব ব্যাংকেরই মুনাফার এ উৎস সংকুচিত হয়েছিল। তাছাড়া তারল্য সংকটের কারণে ব্যাংকগুলোর তহবিল সংগ্রহ ব্যয় (কস্ট অব ফান্ড) আগের তুলনায় বেড়ে যায়। ফলে আগের ছয় মাসে কমলেও জুলাই থেকে ডিসেম্বরে ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা বৃদ্ধি পেয়েছে।

তবে পরিচালন মুনাফাই একটি ব্যাংকের প্রকৃত মুনাফা নয়। আয় থেকে ব্যয় বাদ দিলে যা থাকে, তা-ই হচ্ছে পরিচালন মুনাফা। আর পরিচালন মুনাফা থেকে খেলাপি ঋণ,সঞ্চিতি, করপোরেট কর বাদ দিলে যা থাকে, তা-ই হচ্ছে নিট মুনাফা। নিট মুনাফা থেকেই লভ্যাংশ দেয় তালিকাভুক্ত ব্যাংক।

শুধু পরিচালন মুনাফা দেখে বিনিয়োগ না করতে শেয়ারবাজারের বিনিয়োগকারীদের প্রতি গত বছর আহ্বান জানিয়েছে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ।

ব্যাংক থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ২০২৩ সালে রাষ্ট্রায়ত্ব রূপালী ব্যাংকের মুনাফা বৃদ্ধি পেয়েছে ৫৬০ শতাংশ। কারণ ২০২৩ সালে ব্যাংকটির পরিচালন মুনাফা হয়েছে ৭০০ কোটি টাকা। কিন্তু এক বছর আগে (২০২২) তা ছিল ১০৬ কোটি। ঋণ আদায় বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে এক বছরের ব্যবধানে ৫৯৪ কোটি টাকার পরিচালন মুনাফা বেড়েছে রূপালীর।

সদ্য সমাপ্ত বছরে রাষ্ট্রায়ত্বা জনতা ব্যাংকের মুনাফা দাঁড়িয়েছে এক হাজার ২৩ কোটি টাকা। তবে আগের বছর ব্যাংকটির পরিচালন মুনাফা ছিল ৯২৮ কোটি টাকা।

বেসরকারি খাতের ইসলামী ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা বেড়েছে ১৩৫ কোটি টাকা। কারণ ২০২২ সালে ব্যাংকটির মোট পরিচালন মুনাফা ছিল দুই হাজার ৬৪৬ কোটি টাকা। তবে এবছর ২০২৩ সালে ইসলামী ব্যাংকের পরিচালন মুনাফা দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ৭৮১ কোটি টাকায়।

২০২৩ সালে ৪৫৫ কোটি টাকার পরিচালন মুনাফা অর্জন করেছে ইউনিয়ন ব্যাংক। আগের বছর ব্যাংকটির মুনাফ হয়েছিল ৪১৫ কোটি টাকা। আলোচ্য সময়ে সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের লাভ হয়েছে ৬০০ কোটি টাকা। কিন্তু এক বছর আগে ব্যাংকটির পরিচালন মুনাফা ছিল ৫২০ কোটি টাকা। একই সমেয় মেঘনা ব্যাংকের পরিচালর মুনাফা ৭৫ কোটি থেকে ১৬৫ কোটি টাকায় উন্নীত হয়েছে।

এছাড়া বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক ৭৪৯ কোটি, পূবালী ব্যাংক এক হাজার ৭৫৬ কোটি, বিডিবিএল ২৫ কোটি ও মধুমতি ব্যাংক ২২২ কোটি টাকার পরিচালন মুনাফা অর্জন করেছে ২০২৩ সালে।

পরিচালন মুনাফা বৃদ্ধি সবচেয়ে বড় অন্তরায় খেলাপি ঋণ। কারণ কোনো ব্যাংকে খেলাপি ঋণ বৃদ্ধি পেলে প্রভিশন বেশি রাখতে হয়। তাই ব্যবসা বাড়লেও খেলাপিতে খেয়ে ফেলে সেই মুনাফা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য বলছে, চলতি বছরের সেপ্টেম্বর প্রান্তিক শেষে দেশের ব্যাংকিং খাতের মোট বিতরণ করা ঋণের পরিমাণ ১৫ লাখ ৬৫ হাজার ১৯৫ কোটি টাকা। এর মধ্যে খেলাপি ঋণে পরিণত হয়েছে ১ লাখ ৫৫ হাজার ৩৯৭ কোটি টাকা। এটি মোট বিতরণ ঋণের ৯ দশমিক ৯৩ শতাংশ। এটি গত বছরের (সেপ্টেম্বর-২০২২) একই সময়ের চেয়ে ২১ হাজার কোটি টাকা বেশি। গত বছরের সেপ্টেম্বর শেষে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ছিল ১ লাখ ৩৪ হাজার ৩৯৬ কোটি টাকা।

Banijjobarta© Copyright 2022-2023, All Rights Reserved
Site Customized By NewsTech.Com