1. banijjobarta22@gmail.com : admin :

শেয়ারবাজারে বড় পতন, দ্রুত ঘুরে দাঁড়ানোর আশা

  • Last Update: Sunday, February 27, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাশিয়া-ইউক্রেনের চলমান যুদ্ধ আতঙ্কে টালমাটাল দেশের শেয়ারবাজার। গত কয়েক কার্যদিবসের ধারাবাহিকতায় আজ রোববারও ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মূল্য সূচকের বড় পতন হয়েছে। এদিন ডিএসই’’র প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স কমেছে ১৬৩ পয়েন্ট বা ২ শতাংশ।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, রাশিয়া আর ইউক্রেনের যুদ্ধ নিয়ে আতঙ্ক, মিডিয়া ও সোস্যাল মিডিয়ার নেতিবাচক প্রতারণা, সবকিছু মিলে বাজারে পতন হয়েছে। তবে শিগগিরই এই অবস্থা থেকে উত্তরণ মিলবে বলে মনে করছেন তারা।

বাজার বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, রোববার ডিএসইতে ৯১৬ কোটি ২৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যা আগের কার্যদিবস থেকে ১৩৩ কোটি ৯৯ লাখ টাকা কম। গত বৃহস্পতিবার বাজারে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৫০ কোটি ২৮ লাখ টাকার।

ডিএসই প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ১৬৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৬ হাজার ৬৭৬ পয়েন্টে। ডিএসই-৩০ সূচক ৪৭ পয়েন্ট এবং ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৩০ পয়েন্ট কমেছে।

রোববার ডিএসইতে মোট ৩৭৯টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০টির, দর কমেছে ৩৬৫টির এবং দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪টি কোম্পানির।

অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএসপিআই ৫০৬ পয়েন্ট কমেছে। সিএসইতে আজ ৩৩ কোটি ৫৩ লাখ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

বাজারে ক্রমাগত পতন কেন হচ্ছে তার একটি ব্যাখ্যা দিয়েছেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পরিচালক মো. শাকিল রিজভী। বাণিজ্য বার্তাকে তিনি বলেন, চলমান পতনের একটাই কারণ, তা হলো রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধ নিয়ে আতঙ্ক। বিনিয়োগকারীরা ভিনদেশি যুদ্ধ নিয়ে আতঙ্কগ্রস্থ হয়ে শেয়ার বিক্রির চিন্তা করছে। ফলে পতন হয়েছে।

তবে দিনের পর দিন এই আতঙ্ক থাকবে না বলেও মনে করেন তিনি। বলেন, আতঙ্ক এক সময় কেটে যাবে। সেটা আগামীকালও হতে পারে। আশা করছি, শিগগিরই বাজার ইতিবাচক হবে।

বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) প্রেসিডেন্ট মো. সায়েদুর রহমান বাণিজ্য বার্তাকে বলেন, ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ নিয়ে এতো বেশি নেতিবাচক প্রচারণা হচ্ছে যা নিয়ে বাজারে অস্থিরতা শুরু হয়েছে। মিডিয়া ও সোস্যাল মিডিয়ার আলোচনাও অস্থিরতার বড় কারণ। তবে এই অস্থিরতা আর থাকবে না। কেটে যাবে। আগামীকাল থেকেই বাজার পতন থেকে বের হবে বলে আমি আশা করছি।

এর আগে ডিএসই পরিচালক মো. শাকিল রিজভী ফেসবুকে একটি পোস্টে লিখেছেন, বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের উল্লেখযোগ্য প্রভাব না থাকলেও মনস্তাত্ত্বিকভাবে এটি বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি করা হয়েছে। অনেকেই অপেক্ষায় আছে কম দামে ভালো শেয়ার কীভাবে কেনা যায়। তবে বাজার তার আপন শক্তিতে ঘুরে দাঁড়াবে।

Banijjobarta© Copyright 2020-2022, All Rights Reserved
Site Customized By NewsTech.Com