1. banijjobarta22@gmail.com : admin :

ফের হিরুর কারসাজি, এবার জরিমানা দেড় কোটি টাকা

  • Last Update: Monday, October 17, 2022
আলোচিত বিনিয়োগকারী আবুল খায়ের হিরু

নিজস্ব প্রতিবেদক

শেয়ারবাজারের আলোচিত বিনিয়োগকারী আবুল খায়ের হিরুকে শেয়ার কারসাজির দায়ে একাধিকবার জরিমানা করা হলেও তার কারসাজি থামেনি। বরং বড় পরিসরে কারসাজি করেছেন তিনি ও তার সহযোগীরা। ফের কারসাজির দায়ে হিরুকে জরিমানা করেছে নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এবার তিনি ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্সের শেয়ার নিয়ে কারসাজি করেছেন। এরজন্য দেড় কোটি টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

সম্প্রতি বিএসইসির নিয়মিত বৈঠকে হিরুকে জরিমানা করার এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এর আগে আবুল খায়ের হিরু সাতটি কোম্পানির শেয়ারে কারসাজি করে ১৩৭ কোটি টাকা মুনাফা করে ১০ কোটি ৮৯ লাখ টাকা জরিমানা দিয়েছিলেন।

আইপিডিসির শেয়ার নিয়ে কারসাজি করে তিনি কত টাকা মুনাফা করেছেন সেটা অবশ্য জানা যায়নি।

আইডিপিসির শেয়ার গত বছর এপ্রিলের ৪ তারিখে ছিল ২২ টাকা ৬০ টাকা। এরপর এই শেয়ার টানা বাড়তে থাকে। চলতি বছরের আগস্টের ২৫ তারিখে এই শেয়ারের দাম হয় ৭৬ টাকা ২০ পয়সা। এই সময়ে শেয়ারটির দাম বেড়েছে ৫৩ টাকা ৬০ পয়সা বা ২৩৭ শতাংশ। কিন্তু এর পরই শেয়ারটির দাম কমতে শুরু করে, রোববার এই শেয়ারের দাম ছিল ৫৭ টাকা ৬০ পয়সা। অর্থাৎ মাত্র দেড় মাসে শেয়ারটির দাম কমে যায় ১৮ টাকা ৬০ পয়সা বা ২৫ শতাংশ।

এর আগে এশিয়ান ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার নিয়ে কারসাজি করে আবুল খায়ের হিরু জরিমানা দিয়েছিলন ৭২ লাখ টাকা। গ্রিন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার নিয়ে কারসাজির ঘটনায় জরিমানা ছিল ৪২ লাখ টাকা। ঢাকা ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার নিয়ে কারসাজি করে জরিমানা দিয়েছিলেন ৯৫ লাখ টাকা। এনআরবিসি ব্যাংকের শেয়ার নিয়েও কারসাজি করে জরিমানা দেন ৩ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। ফরচুন সুজ লিমিটেডের শেয়ার নিয়ে কারসাজি করে হিরুর বাবা আবুল কালাম মাতবর জরিমানা দেন ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা। বিডিকমের শেয়ার নিয়ে কারসাজিতে জরিমানা হয় ৫৫ লাখ টাকা। ওয়ান ব্যাংকের শেয়ারের দাম নিয়ে কারসাজি করে জরিমানা দেন ৩ কোটি টাকা।

আবুল খায়ের হিরু সমবায় অধিদপ্তরের ডেপুটি রেজিস্ট্রার। সরকারি চাকরির বাইরেও তিনি একজন উদ্যোক্তা।

Banijjobarta© Copyright 2020-2022, All Rights Reserved
Site Customized By NewsTech.Com