1. banijjobarta22@gmail.com : admin :

জুলাইয়ে কমেছে মূল্যস্ফীতি

  • Last Update: Wednesday, August 3, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক

চলতি অর্থবছরের শুরুর মাস জুলাইয়ে মূল্যস্ফীতি কিছুটা কমেছে। এই মাসে সাধারণ মূল্যস্ফীতি কমে ৭ দশমিক ৪৮ শতাংশ হয়েছে, গত মাসে যা ছিল ৭ দশমিক ৫৬ শতাংশ। অর্থাৎ জুন মাসের তুলনায় জুলাইয়ে মূল্যস্ফীতি কমেছে দশমিক ০৮ শতাংশ।

বুধবার (৩ আগস্ট) পরিকল্পনা কমিশনে সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

প্রতিমাসে মাঠ পর্যায় থেকে বিভিন্ন প্রকার দ্রব্য ও সেবার মূল্য সংগ্রহপূর্বক সংগৃহীত উপাত্তসমূহ বিশ্লেষণ করে ভোক্তা মূল্য সূচকসমূহ (জাতীয়, পল্লী, শহর) এবং মূল্যস্ফীতির হার প্রণয়ন করা হয়। বর্ণিক সূচনসমূক এবং মূল্যস্ফীতির হার সাধারণ, খাদ্য এবং খাদ্য বহির্ভূত এই তিন ভাগে আলাদাভাবে প্রস্তুতপূর্বক যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে প্রকাশ করা হয়।

জুলাই মাসে সাধারণ মূল্যস্ফীতির হার ছিল ৭ দশমিক ৫৬ শতাংশ, যা গত জুন মাসে ছিল ৭ দশমিক ৪৮ শতাংশ। খাদ্যে জুলাই মাসে মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৮ দশমিক ১৯ শতাংশ, যা জুন মাসে ছিল ৮ দশমিক ৩৭ শতাংশ। খাদ্য বহির্ভূত খাতে জুলাই মাসে মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৬ দশমিক ৩৯ শতাংশ, যা জুন মাসে ছিল ৬ দশমিক ৩৩ শতাংশ।

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর মূল্যস্ফীতির হার পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, জুলাই মাসে খাদ্যপণ্য আটা, ময়দা, ব্রয়লার মুরগি, ডিম, সবজি, ভোজ্যতেল (সয়াবিন ও পাম), মসলা (পেঁয়াজ, দারুচিনি, হলুদ ইত্যাদি) এবং খাদ্য বহির্ভূত ভোগ্যপণ্য যেমন বোতলজাত গ্যাস (সিলিন্ডার) এসব স্বর্ণের মূল্য জুন মাসের তুলনায় জুলাইয়ে কমেছে।

অপরদিকে খাদ্যপণ্য যেমন সবজি (আলু, লাউ, বেগুন, বরবটি ইত্যাদি), মসলা (আদা, রসুন, কাঁচা মরিচ ইত্যাদি) এবং খাদ্য বহির্ভূত ভোগ্যপণ্য যেমন পোশাকাদি (বস্ত্র ও পাদুকা) এবং ওষুধের মূল্য জুন মাসের তুলনায় জুলাইয়ে বেড়েছে।

এছাড়া খাদ্যপণ্য যেমন হরিলিকস, ওভালটিন, পাউডার দুধ, লবণ, নুডুলস ইত্যাদি এবং খাদ্য বহির্ভূত পণ্য যেমন পরিবহন ও যোগাযোগ, শিক্ষা ইত্যাদি খাতের মূল্য প্রায় স্থিতিশীল রয়েছে।

Banijjobarta© Copyright 2020-2022, All Rights Reserved
Site Customized By NewsTech.Com