1. banijjobarta22@gmail.com : admin :

বিনিয়োগ বাড়ানোর ঘোষণা মিউচুয়াল ফান্ডের

  • Last Update: Thursday, March 10, 2022

নিজস্ব প্রতিবেদক

শেয়ারবাজার স্থিতিশীল করতে ৩৩ ব্যাংক এগিয়ে আসার পরদিনই মিউচুয়াল ফান্ডের ব্যবস্থাপকরা বিনিয়োগ বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। তাদের এই ঘোষণা বাজারে গতি ফেরাতে ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সাথে অ্যাসোসিয়েশন অফ অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিজ অ্যান্ড মিউচুয়াল ফান্ডসের (এএএমসিএমএফ) বৈঠক হয়।

বিএসইসি কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে বিএসইসি কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ সভাপতিত্ব করেন। এএএমসিএমএফ’র সভাপতি ড. হাসান ইমামের নেতৃত্বে মিউচুয়াল ফান্ড পরিচালনাকারী অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

বৈঠক প্রসঙ্গে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র রেজাউল করিম বলেন, মৌলভিত্তির কিছু কোম্পানির শেয়ারদর অবমূল্যায়িত হয়ে পড়েছে বলে ফান্ড ম্যানেজাররা মনে করছেন। যেখানে এখন বিনিয়োগে লাভবান হওয়া সম্ভব। তাই ফান্ড ম্যানেজাররা তাদের হাতে থাকা অর্থ দ্রুত বিনিয়োগ করবেন বলে জানিয়েছেন।

তিনি জানান, অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিগুলোকে বড় বড় প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের বাজারে আনার জন্য কাজ করার নির্দেশও দেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাবে দেশের শেয়ারবাজারে টানা ৮ দিন পতন হয়। এ সময়ে সূচক পরে ৩৮২ পয়েন্ট। এরপর গত মঙ্গলবার পতন ঠেকাতে বিএসইসি শেয়ারবাজার স্থিতিশীলতা ফান্ড থেকে ১০০ কোটি টাকা বিনিয়োগের নির্দেশ দেয়। একই দিন শেয়ারদর সর্বনিম্ম ২ শতাংশের নিচে না নামার নতুন নিয়ম জারি করে কমিশন। এতে ওইদিনই বাজারে গতি ফেরে। গতকাল তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর সঙ্গে বৈঠক করে বিএসইসি। ওই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, যেসব ব্যাংক তাদের মূলধনের ২৫ শতাংশ এখনও শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করেনি, তারা দ্রুত ২ শতাংশ বিনিয়োগ বাড়াবে। এছাড়া শেয়ারবাজারের জন্য গঠিত বিশেষ তহবিলে এখনও যেসব ব্যাংক ২০০ কোটি টাকা জমা দেয়নি, সেগুলো তাতে টাকা জমা দেবে। যেসব ব্যাংক টাকা জমা দিয়েও বিনিয়োগ করেনি, তারা দ্রুত বিনিয়োগে যাবে- এমন সিদ্ধান্তও হয়।

এই সিদ্ধান্তের ফলও মিলেছে। গত তিন কার্যদিবসে সূচক ফিরেছে ২১০ পয়েন্ট। লেনদেন ছাড়িয়েছে হাজার কোটি টাকা।

শেয়ারবাজারে বর্তমানে ৩৬টি মেয়াদী মিউচুয়াল ফান্ড তালিকাভুক্ত রয়েছে। এর বাইরে রয়েছে ৭৭টি বেমেয়াদি মিউচুয়াল ফান্ড। এসব ফান্ডের আওতায় রয়েছে ৬ হাজার ২৯৫ কোটি টাকার সম্পদ।

রেজাউল করিম বলেন, কমিশনের পক্ষ থেকে ফান্ড ম্যানেজারদের তাদের অংশগ্রহণ বাড়ানোর জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে। বর্তমানে বাজারে তাদের যে ১৪-১৫ হাজার কোটি টাকার বাজার মূলধন রয়েছে, সেটাকে উন্নত করতে হবে। তাহলে ভবিষ্যতে শেয়ারবাজারের স্থায়ী উন্নয়নে মিউচুয়াল ফান্ড খাত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবে।

Banijjobarta© Copyright 2020-2022, All Rights Reserved
Site Customized By NewsTech.Com